বান্দরবানের লামা মাতামুহুরী নদীতে ডুবে মো. তামিম নামে (১৮ মাস বয়সী) এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৯ নভেম্বর) সকাল ৭টায় উপজেলার রূপসীপাড়া ইউপির ১ নং ওয়ার্ড পূর্ব শিলেরতুয়া নয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

শিশু মো. তামিম পূর্ব শিলেরতুয়া নয়াপাড়া গ্রামের বাশারুল ইসলাম ও তাহমিনা আক্তারের ছেলে।

জানা যায়, সকালে ঘুম থেকে উঠে সন্তানের জন্য খিচুড়ি রান্না করছিলেন মা তাহমিনা আক্তার। খেলার ছলে বাড়ির পাশের মাতামুহুরী নদীতে ডুবে যায় শিশুটি। শিশুটিকে উদ্ধার করে তার বাবা-মা লামা সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লামা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত মেডিকেল অফিসার ডা. রেহেনা মজুমদার জানান, হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তারপরেও আমরা ইসিজি করে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি।

শিশুটির মা তাহমিনা আক্তার বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে সন্তানের জন্য খিচুড়ি রান্না করছিলাম। এই ফাঁকে কখন যে তামিম ঘুম থেকে উঠে বাইরে চলে যায় বুঝতে পারিনি। একটু পরে রুমে এসে দেখি সে নাই। অনেক খোঁজাখুঁজির পর বাড়ির পাশের মাতামুহুরী নদীতে তার লাশ ভাসতে দেখি।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামীম শেখ বলেন, পানিতে ডুবে শিশু মারা যাওয়ার বিষয়টি তার বাবা-মা জানিয়েছে। হাসপাতালে পুলিশের টিম পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে প্রাথমিকভাবে সুরতহাল করা হয়েছে। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। তবে ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ নিয়ে যেতে শিশুটির বাবা-মা অনুরোধ করেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রূপসীপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ছাচিংপ্রু মার্মা বলেন, ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ পরিবারের কাছে দিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

সূত্র : বার্তা বাজার/জে আই

By Nogor24